খেজুরের গুড় – 2.5কেজি (Pure date molasses)

(3 customer reviews)

৳ 520.00

চুয়াডাঙ্গার খেজুরের গুড় (লিকুইড)

  • ১০০% খাঁটি খেজুরের গুড়
  • ফ্রি হোম ডেলিভারি (ঢাকা শহর)
  • প্রোডাক্ট যাচাই করে মূল্য পরিশোধ করার সুযোগ।
  • ফোন করে অর্ডার করতে পারবেন।
    মোবাইল : ০১৭১৭-৭২১৪০০

আমাদের থেকে আপনারা শতভাগ খাঁটি মানের খেজুরের গুড় পাবেন, কারণ চুয়াডাঙ্গার যে সকল গাছী (গুড় চাষী) পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন ভাবে চিনি মুক্ত খেজুরের গুড় প্রস্তুত করেন, তাদের কাছ থেকে আমরা গুড় সংগ্রহ করি এবং সারা ঢাকা শহরে ফ্রি হোম ডেলিভারি দিয়ে থাকি।

খাঁটি খেজুরের গুড় চেনার উপায়:

আসুন জেনে নিই কীভাবে খাঁটি খেজুরের গুড় চিনবেন-

১. কেনার সময় একটু গুড় ভেঙে মুখে দিয়ে দেখুন। জিভে নোনতা স্বাদ লাগলে বুঝবেন এই গুড় খাঁটি নয়।

২. কেনার সময় গুড়ের ধারটা দুই আঙুল দিয়ে চেপে দেখবেন। যদি নরম লাগে, বুঝবেন গুড়টি বেশ ভালো মানের। ধার কঠিন হলে গুড় না কেনাই বুদ্ধিমানের কাজ।

৩. যদি গুড় একটু হালকা তিতা স্বাদের হয়, তবে বুঝতে হবে গুড় বহু ক্ষণ ধরে জ্বাল দেয়া হয়েছে। তাই একটু তিতকুটে স্বাদ নিয়েছে। স্বাদের দিক থেকে এমন গুড় খুব একটা সুখকর হবে না।

৪. গুড় যদি স্ফটিকের মতো তকতকে দেখতে হয়, তবে বুঝবেন– গুড়টি যে খেজুর রস দিয়ে তৈরি করা হয়েছিল তার স্বাদ খুব একটা মিষ্টি ছিল না।

৫. সাধারণত গুড়ের রঙ গাঢ় বাদামি হয়। হলদেটে রঙের গুড় দেখলেই বুঝতে হবে তাতে অতিরিক্ত রাসায়নিক মেশানো হয়েছে।

সূত্র : যুগান্তর

 

খেজুরের গুড়ের উপকারিতা:

১. আপনি যদি প্রতিদিন খাওয়ার পর একটু গুড় খান তাহলে হজম তাড়াতাড়ি হবে। গুড় আমাদের হজমে সাহায্য করা এনজাইমের শক্তিকে বাড়িয়ে দেয়।

২. শরীরে আয়রনের অভাব ঘটলে হিমগ্লোবিনের ঘাটতি হয় ফলে নানারকম সমস্যার সৃষ্টি হয়। গুড়ে প্রচুর পরিমাণে আয়রন থাকে। প্রতিদিন অল্প পরিমাণে গুড় খেলে শরীরে আয়রনের ঘাটতি কমতে পারে।

৩. প্রিমেনস্ট্রুয়াল সিনড্রোম বা ‌পিএমএস সমস্যায় কমবেশি প্রায় সমস্ত মহিলারা ভোগেন। প্রতিদিন নিয়ম করে অল্প পরিমাণ গুড় খেলে শরীরে হরমোনের সমতা বজায় থাকে। এছাড়া গুড় আমাদের শরীরে হ্যাপি হরমোনের বৃদ্ধি ঘটায় ও হরমোনের সমতা বজায় রাখে।

৪. আমাদের শরীরে কার্বোহাইডেড জাতীয় খাবার অথাৎ চিনি এনার্জি প্রদান করে। কিন্তু এই এনার্জি অনেক সময় আমাদের শরীরে রক্তে চিনির পরিমাণ বাড়িয়ে কিডনি, চোখ ও রক্তের চাপ বাড়িয়ে দেয়। গুড় খেলে এই সমস্যাটি কম হতে পারে। কারণ গুড় রক্তের সঙ্গে মিশতে কিছুটা সময় লাগে। ফলে রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ হঠাৎ করে বেশি কমে বা বেড়ে যেতে পারেনা। ফলে আমাদের শরীরের অন্যান্য অঙ্গগুলির ক্ষতি কম হয়।

৫. গুড় আমাদের শরীর গরম রাখতে সাহায্য করে। ফলে সর্দি, কাশি, ভাইরাল ফিবারের হাত থেকে রক্ষা করে ও শরীর গরম রাখে।

সূত্র : সমকাল

কেন প্রশ্ন থাকলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। মোবাইল: ০১৭১৭-৭২১৪০০

3 reviews for খেজুরের গুড় – 2.5কেজি (Pure date molasses)

  1. Rozina Islam

    খেজুরের গুড় এত স্বাদের হয় আপনাদের গুড় না নিলে বুঝতামই না, অনেক অনেক ধন্যবাদ পরিতৃপ্তি কে, আপনাদের সব প্রোডাক্ট গুলো এমন হলে আমি আপনাদের রেগুলার কাস্টমার।

  2. Rafiqul Islam

    Apnader gur ta valo selo.. thanks.

  3. অনুপমা সেন

    আপনাদের কথার সাথে প্রোডাক্ট এর মিল আছে। মিছরি দানা গুড় আমার প্রিয় এবং আপনাদের গুরটাও মিছরি দানা ছিল। ধন্যবাদ

Add a review

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shopping Cart